সৈয়দপুর ১২:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নানা আয়োজনে জননন্দিত রাজনীতিবিদ আমজাদ হোসেন সরকারের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২৩ ১৯ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মোঃ মারুফ হোসেন লিয়ন, স্টাফ রিপোর্টার: ইতিম, অসহায়, দুস্থ মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ, দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভার মাধ্যমে পালিত হয়েছে সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও সাবেক বিএনপির সাংসদ মরহুম অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকারের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী।

আজ শনিবার (১৪ জানুয়ারী) নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার পাটোয়ারীপাড়াস্থ পারিবারিক কবরস্থানে দোয়া মাহফিল, উপজেলার বিভিন্ন মাদরাসা, এতিমখানা ও বিভিন্ন শ্রেণির মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ এবং স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র, সাবেক সংসদ সদস‍্য প্রয়াত আমজাদ হোসেন সরকার, ডাঃ হানিফ উদ্দিন ও উপাধ‍্যক্ষ মনসূর আহমেদ’র মৃত‍্যূবার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল ও স্বরণ সভা পালন করেছে বিএনপি।

শনিবার(১৪ জানুয়ারী) দুপুর ৩ টায় সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা কার্য়ালয়ে জেলা বিএনপি’র আহবায়ক অধ‍্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার’র সভাপতিত্বে ও সদস‍্য সচিব শাহিন আকতার’র সঞ্চলনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সংসদ সদস‍্য ও সদস‍্য নির্বাহী কমিটি জনাব বিলকিস ইসলাম, জেলা বিএনপি’র সিঃ যুগ্ম আহবায়ক এ‍্যাড এস এম ওবায়দুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক সামসুল আলম, শফিকুল ইসলাম জনি, কিশোরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন, সদস‍্য সচিব দেলোয়ার হোসেন, সৈয়দপুর পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব রশিদুল ইসলাম, আমজাদ হোসেন সরকারের পুত্র রিয়াদ আরফান সরকার রানা ,জেলা যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক, সাধারণ সম্পাদক তারিক আজিজ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এরশাদ হোসেন পাপ্পু, সাধারণ সম্পাদক এম এ পারভেজ লিটন, কৃষক দলের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম মিজু ও সাধারণ সম্পাদক দিনার সরকার সহ অন‍্যান‍্য নেতৃবৃন্দ

এ সময় বক্তারা তার নানান দিক তুলে ধরে বলেন, শিক্ষানগরী সৈয়দপুর আজ অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট বেহাল অবস্থা হয়ে দাড়িঁয়েছে।

প্রধান অতিথির বক্তব‍্যে সাবেক সাংসদ বিলকিস ইসলাম তার নানান দিক তুলে ধরে বলেন, প্রয়াত আমজাদ হোসেন সরকার ভজে আমার ভাইয়ের মতো ছিল। এক সাথে ২০০১-২০০৬ সালে সংসদে ছিলাম। সব সময় আমাকে বলতো বিলকিস আপা সৈয়দপুর -কিশোরগঞ্জে উন্নয়ন করতে হবে। আমি সারা জীবন বেচেঁ থাকবো না। আমার মৃত‍্যুর পর আপনাকে হাল ধরতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের এই দিনে সৈয়দপুর পৌরসভার নির্বাচন চলাকালীন না ফেরার দেশে পারি জমান বারবার নির্বাচিত জননন্দিত এই নেতা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


নানা আয়োজনে জননন্দিত রাজনীতিবিদ আমজাদ হোসেন সরকারের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

আপডেট সময় : ১০:৩৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২৩

মোঃ মারুফ হোসেন লিয়ন, স্টাফ রিপোর্টার: ইতিম, অসহায়, দুস্থ মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ, দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভার মাধ্যমে পালিত হয়েছে সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও সাবেক বিএনপির সাংসদ মরহুম অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকারের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী।

আজ শনিবার (১৪ জানুয়ারী) নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার পাটোয়ারীপাড়াস্থ পারিবারিক কবরস্থানে দোয়া মাহফিল, উপজেলার বিভিন্ন মাদরাসা, এতিমখানা ও বিভিন্ন শ্রেণির মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ এবং স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে সৈয়দপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র, সাবেক সংসদ সদস‍্য প্রয়াত আমজাদ হোসেন সরকার, ডাঃ হানিফ উদ্দিন ও উপাধ‍্যক্ষ মনসূর আহমেদ’র মৃত‍্যূবার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল ও স্বরণ সভা পালন করেছে বিএনপি।

শনিবার(১৪ জানুয়ারী) দুপুর ৩ টায় সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা কার্য়ালয়ে জেলা বিএনপি’র আহবায়ক অধ‍্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার’র সভাপতিত্বে ও সদস‍্য সচিব শাহিন আকতার’র সঞ্চলনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সংসদ সদস‍্য ও সদস‍্য নির্বাহী কমিটি জনাব বিলকিস ইসলাম, জেলা বিএনপি’র সিঃ যুগ্ম আহবায়ক এ‍্যাড এস এম ওবায়দুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক সামসুল আলম, শফিকুল ইসলাম জনি, কিশোরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন, সদস‍্য সচিব দেলোয়ার হোসেন, সৈয়দপুর পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব রশিদুল ইসলাম, আমজাদ হোসেন সরকারের পুত্র রিয়াদ আরফান সরকার রানা ,জেলা যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক, সাধারণ সম্পাদক তারিক আজিজ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এরশাদ হোসেন পাপ্পু, সাধারণ সম্পাদক এম এ পারভেজ লিটন, কৃষক দলের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম মিজু ও সাধারণ সম্পাদক দিনার সরকার সহ অন‍্যান‍্য নেতৃবৃন্দ

এ সময় বক্তারা তার নানান দিক তুলে ধরে বলেন, শিক্ষানগরী সৈয়দপুর আজ অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট বেহাল অবস্থা হয়ে দাড়িঁয়েছে।

প্রধান অতিথির বক্তব‍্যে সাবেক সাংসদ বিলকিস ইসলাম তার নানান দিক তুলে ধরে বলেন, প্রয়াত আমজাদ হোসেন সরকার ভজে আমার ভাইয়ের মতো ছিল। এক সাথে ২০০১-২০০৬ সালে সংসদে ছিলাম। সব সময় আমাকে বলতো বিলকিস আপা সৈয়দপুর -কিশোরগঞ্জে উন্নয়ন করতে হবে। আমি সারা জীবন বেচেঁ থাকবো না। আমার মৃত‍্যুর পর আপনাকে হাল ধরতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের এই দিনে সৈয়দপুর পৌরসভার নির্বাচন চলাকালীন না ফেরার দেশে পারি জমান বারবার নির্বাচিত জননন্দিত এই নেতা।