সৈয়দপুর ০৬:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিদ্যুৎ লোডশেডিংয়ে নাকাল মানুষ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১৯:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩ ২৬ বার পড়া হয়েছে

সংগৃহীত ছবি

চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ডেস্ক রিপোর্টঃ তীব্র দাপদাহের মধ্যে সারাদেশে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে নাকাল মানুষ। দিনে রাতে কয়েকবার বিদ্যুত থাকছে না। পিডিবি’র তথ্য অনুযায়ী, ১৬ হাজার মেগাওয়াটের বেশি চাহিদার বিপরীতে দৈনিক উৎপাদন হচ্ছে ১৪ থেকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত। ঘাটতি থাকছে এক থেকে দেড় হাজার। ফলে লোডশেডিং করতে হচ্ছে। এদিকে, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানির সংকটও দুর্ভোগ বাড়িয়েছে মানুষের।

টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দেশজুড়ে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর থাকছে। দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহে অস্থির জনজীবন। এরমধ্যে বিদ্যুতের লোডশেডিং ও পানির সংকট মানুষের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়েছে।

বিদ্যুৎ সংকটে চাহিদামত পানিও সরবরাহ করতে পারছে না ঢাকা ওয়াসা। রাজধানীর বাড্ডা, মোহাম্মদপুর, মিরপুরসহ কয়েকটি এলাকায় দেখা দিয়েছে পানির সংকট।

বিদ্যুতের উৎপাদন ও চাহিদার মধ্যে ঘাটতি থাকায় রাজধানীসহ সারাদেশেই লোডশেডিং চলছে। মানুষের অভিযোগ ইফতার এবং সেহেরির সময়ও বিদ্যুৎ থাকে না। মধ্যরাতে বিদ্যুৎ চলে গেলে গরমে ঘুম ভেঙে যায়। তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন।

পিডিবির তথ্য অনুযায়ী, পিক আওয়ারে ১৬ হাজার মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে। উৎপাদন হচ্ছে ১৪ থেকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত।

তীব্র গরমে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় লোডশেডিয়ের কারণ উলে­খ করে বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী জনগণকে ধৈর্য্য ধরার আহবান জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


বিদ্যুৎ লোডশেডিংয়ে নাকাল মানুষ

আপডেট সময় : ০১:১৯:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩

ডেস্ক রিপোর্টঃ তীব্র দাপদাহের মধ্যে সারাদেশে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে নাকাল মানুষ। দিনে রাতে কয়েকবার বিদ্যুত থাকছে না। পিডিবি’র তথ্য অনুযায়ী, ১৬ হাজার মেগাওয়াটের বেশি চাহিদার বিপরীতে দৈনিক উৎপাদন হচ্ছে ১৪ থেকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত। ঘাটতি থাকছে এক থেকে দেড় হাজার। ফলে লোডশেডিং করতে হচ্ছে। এদিকে, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানির সংকটও দুর্ভোগ বাড়িয়েছে মানুষের।

টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দেশজুড়ে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর থাকছে। দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহে অস্থির জনজীবন। এরমধ্যে বিদ্যুতের লোডশেডিং ও পানির সংকট মানুষের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়েছে।

বিদ্যুৎ সংকটে চাহিদামত পানিও সরবরাহ করতে পারছে না ঢাকা ওয়াসা। রাজধানীর বাড্ডা, মোহাম্মদপুর, মিরপুরসহ কয়েকটি এলাকায় দেখা দিয়েছে পানির সংকট।

বিদ্যুতের উৎপাদন ও চাহিদার মধ্যে ঘাটতি থাকায় রাজধানীসহ সারাদেশেই লোডশেডিং চলছে। মানুষের অভিযোগ ইফতার এবং সেহেরির সময়ও বিদ্যুৎ থাকে না। মধ্যরাতে বিদ্যুৎ চলে গেলে গরমে ঘুম ভেঙে যায়। তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন।

পিডিবির তথ্য অনুযায়ী, পিক আওয়ারে ১৬ হাজার মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে। উৎপাদন হচ্ছে ১৪ থেকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত।

তীব্র গরমে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় লোডশেডিয়ের কারণ উলে­খ করে বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী জনগণকে ধৈর্য্য ধরার আহবান জানান তিনি।