সৈয়দপুর ০৬:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার বিকল্প নেইঃ নানক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৯:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২ ১৩ বার পড়া হয়েছে

অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক

চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ডেস্ক রিপোর্টঃ নিশ্চিত উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার পক্ষে ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে দেশের মানুষের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাইলে নৌকার বিকল্প নেই।

শুক্রবার বিকেলে গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসন উপনির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী মাহমুদ হাসান রিপনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে তিনি এই আহ্বান জানান। ফুলছড়ি উপজেলার এক স্কুল মাঠেই জনসভার আয়োজন করা হয়।

আমাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রয়াত এমপি ফজলে রাব্বী মিয়ার মেয়ের উদ্দেশ্যে আমি বলব- চিন্তার কিছু নেই। অনেক উপহার দেওয়ার মত সুযোগ নেত্রীর (প্রধানমন্ত্রী) রয়েছে। তবে এই আসনের উপনির্বাচনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। প্রতিটি ঘরে প্রতিটি ভোটারের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, আগামী ১২ই অক্টোবর সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকার পক্ষে সকলে ভোট দিবেন। বিপুল ভোটে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীকে এ আসনটি উপহার দেবেন আপনারা।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা আমাকে পাঠিয়েছেন নৌকার পক্ষে জনসাধারণের ভোট নিশ্চিত করতে।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এটাও বলেছেন- এই আসনের ভোটাররা নৌকার পক্ষে ভোট দিয়ে পার্থীকে জয়যুক্ত করলে অচিরেই এলাকার যে সকল সমস্যা রয়েছে তা সমাধান করবেন। যমুনার ভাঙ্গনে ফুলছড়ি-সাঘাটা এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। আপনারা যদি রিপনকে (নৌকার প্রার্থী) ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেন তাহলে এই যমুনার ভাঙন থেকে চিরদিনের জন্য জীবন রক্ষা বাঁধ তৈরি করা হবে। এলাকার উন্নয়ন নিশ্চিত হবে।

জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার, সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন প্রমুখ। নির্বাচনী প্রচারণ ছাত্রলীগ- যুবলীগসহ দলের অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীর অংশ নেয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার বিকল্প নেইঃ নানক

আপডেট সময় : ০৫:৪৯:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২

ডেস্ক রিপোর্টঃ নিশ্চিত উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার পক্ষে ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে দেশের মানুষের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাইলে নৌকার বিকল্প নেই।

শুক্রবার বিকেলে গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসন উপনির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী মাহমুদ হাসান রিপনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে তিনি এই আহ্বান জানান। ফুলছড়ি উপজেলার এক স্কুল মাঠেই জনসভার আয়োজন করা হয়।

আমাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রয়াত এমপি ফজলে রাব্বী মিয়ার মেয়ের উদ্দেশ্যে আমি বলব- চিন্তার কিছু নেই। অনেক উপহার দেওয়ার মত সুযোগ নেত্রীর (প্রধানমন্ত্রী) রয়েছে। তবে এই আসনের উপনির্বাচনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। প্রতিটি ঘরে প্রতিটি ভোটারের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, আগামী ১২ই অক্টোবর সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকার পক্ষে সকলে ভোট দিবেন। বিপুল ভোটে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীকে এ আসনটি উপহার দেবেন আপনারা।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা আমাকে পাঠিয়েছেন নৌকার পক্ষে জনসাধারণের ভোট নিশ্চিত করতে।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এটাও বলেছেন- এই আসনের ভোটাররা নৌকার পক্ষে ভোট দিয়ে পার্থীকে জয়যুক্ত করলে অচিরেই এলাকার যে সকল সমস্যা রয়েছে তা সমাধান করবেন। যমুনার ভাঙ্গনে ফুলছড়ি-সাঘাটা এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। আপনারা যদি রিপনকে (নৌকার প্রার্থী) ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেন তাহলে এই যমুনার ভাঙন থেকে চিরদিনের জন্য জীবন রক্ষা বাঁধ তৈরি করা হবে। এলাকার উন্নয়ন নিশ্চিত হবে।

জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার, সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন প্রমুখ। নির্বাচনী প্রচারণ ছাত্রলীগ- যুবলীগসহ দলের অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীর অংশ নেয়।