সৈয়দপুর ০৫:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কিশোরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে বৃদ্ধা নিহত

ফজল কাদির
  • আপডেট সময় : ১১:১২:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০২৪ ৫৪ বার পড়া হয়েছে

প্রতীকী ছবি

চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফজল কাদিরঃ বিরোধপূর্ণ জমির সীমানা পরিমাপের সময় দুই পক্ষের সংঘর্ষে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের মুশা বালাপাড়া গ্রামে  সুফলা রানী বালা (৬৫) নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) বিকালের ওই ঘটনায় প্রথমে আহত অবস্থায় ওই বৃদ্ধাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। নিহত বৃদ্ধা ওই গ্রামের মৃত রজনীকান্ত বর্মণের স্ত্রী।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ রাতেই ৩ জনকে আটক করেছে। আটকরা হলেন, কেদারের ছেলে উজ্জল রায়, মৃত ললিতের স্ত্রী নির্মলা রায় ও সুরজিত ওরফে কাল্টুর স্ত্রী অনিতা রায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের সুধীরের ছেলে হরিশচন্দ্রের সঙ্গে বড়ভিটার বড়ডুমুরিয়া কামারপাড়া গ্রামের শ্রীনাথের ছেলে সুরজিত ওরফে কাল্টুর সঙ্গে এক একর জমির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন সেই জমি পরিমাপের সময় কাল্টু ও তার লোকজন হরিশচন্দ্রের লোকদের ওপর হামলা করেন। এসময় ওই বৃদ্ধা ও তার ছেলে প্রাণকৃষ্ণ রায়সহ ৫ জন গুরুত্বর আহত হন। অন্যান্য আহতরা ওই হাসপাতাল চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি পলাশ চন্দ্র মন্ডল এ ঘটনায় ৩জনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, এ ঘটনায় নিহত বৃদ্ধার ছেলে সুভাস চন্দ্র বাদি হয়ে ১৬  জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


কিশোরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে বৃদ্ধা নিহত

আপডেট সময় : ১১:১২:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০২৪

ফজল কাদিরঃ বিরোধপূর্ণ জমির সীমানা পরিমাপের সময় দুই পক্ষের সংঘর্ষে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের মুশা বালাপাড়া গ্রামে  সুফলা রানী বালা (৬৫) নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) বিকালের ওই ঘটনায় প্রথমে আহত অবস্থায় ওই বৃদ্ধাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। নিহত বৃদ্ধা ওই গ্রামের মৃত রজনীকান্ত বর্মণের স্ত্রী।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ রাতেই ৩ জনকে আটক করেছে। আটকরা হলেন, কেদারের ছেলে উজ্জল রায়, মৃত ললিতের স্ত্রী নির্মলা রায় ও সুরজিত ওরফে কাল্টুর স্ত্রী অনিতা রায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের সুধীরের ছেলে হরিশচন্দ্রের সঙ্গে বড়ভিটার বড়ডুমুরিয়া কামারপাড়া গ্রামের শ্রীনাথের ছেলে সুরজিত ওরফে কাল্টুর সঙ্গে এক একর জমির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন সেই জমি পরিমাপের সময় কাল্টু ও তার লোকজন হরিশচন্দ্রের লোকদের ওপর হামলা করেন। এসময় ওই বৃদ্ধা ও তার ছেলে প্রাণকৃষ্ণ রায়সহ ৫ জন গুরুত্বর আহত হন। অন্যান্য আহতরা ওই হাসপাতাল চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি পলাশ চন্দ্র মন্ডল এ ঘটনায় ৩জনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, এ ঘটনায় নিহত বৃদ্ধার ছেলে সুভাস চন্দ্র বাদি হয়ে ১৬  জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।