সৈয়দপুর ০৭:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খানসামায় অনুমোদন ছাড়াই জৈব সার তৈরী ও বিক্রিঃ ২০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৮:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩ ১৮ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের খানসামায় অনুমোদন ছাড়া জৈব সার তৈরী ও মোড়কজাত করে বাজারে বিক্রির অপরাধে ‘রওশন ট্রাইকো জৈব সার’ কারখানার মালিককে ভোক্তা সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৪৩ ধারা অনুযায়ী ২০ হাজার টাকা জরিমানা, ২৯ বস্তা সার জব্দ ও রেজিস্ট্রেশন না করা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (৩০ জানুয়ারী) দুপুরে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আমতলী বাজার এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারুফ হাসান। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হাবিবা আক্তার।

জানা যায়, অনুমোদন ছাড়াই এবং উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরকে না জানিয়ে অবৈধভাবে জৈব সার তৈরী, প্যাকেটজাত করে আসছিলেন রওশন এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক আবু সুফিয়ান সোয়েব। যেটা তিনি ট্রাইকো জৈব সার নামে বিক্রি করলেও ছিলো না ট্রাইকো সার উৎপাদনের প্রয়োজনীয় কোনো উপকরন। এসব নকল সার তিনি উপজেলা বাদেও পাশ্ববর্তী উপজেলাতেও কয়েক মাস ধরে বিক্রি করে আসছিলেন। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে এই অভিযান পরিচালনা করেন প্রশাসন ও কৃষি বিভাগ।

অতিরিক্ত উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার বলেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন ব্যতীত কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান জৈব সার উৎপাদন, মোড়কজাত করে বাজারজাত করতে পারবে না। কিন্তু ঐ কারখানা মালিক রওশন ট্রাইকো জৈব সার নামে মোড়কজাত করে বিক্রি করছেন এটায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন নেই। যাহা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। তাই প্রশাসন ও কৃষি বিভাগ অভিযান চালিয়েছ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


খানসামায় অনুমোদন ছাড়াই জৈব সার তৈরী ও বিক্রিঃ ২০ হাজার টাকা জরিমানা

আপডেট সময় : ০৬:১৮:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের খানসামায় অনুমোদন ছাড়া জৈব সার তৈরী ও মোড়কজাত করে বাজারে বিক্রির অপরাধে ‘রওশন ট্রাইকো জৈব সার’ কারখানার মালিককে ভোক্তা সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৪৩ ধারা অনুযায়ী ২০ হাজার টাকা জরিমানা, ২৯ বস্তা সার জব্দ ও রেজিস্ট্রেশন না করা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (৩০ জানুয়ারী) দুপুরে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আমতলী বাজার এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারুফ হাসান। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হাবিবা আক্তার।

জানা যায়, অনুমোদন ছাড়াই এবং উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরকে না জানিয়ে অবৈধভাবে জৈব সার তৈরী, প্যাকেটজাত করে আসছিলেন রওশন এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক আবু সুফিয়ান সোয়েব। যেটা তিনি ট্রাইকো জৈব সার নামে বিক্রি করলেও ছিলো না ট্রাইকো সার উৎপাদনের প্রয়োজনীয় কোনো উপকরন। এসব নকল সার তিনি উপজেলা বাদেও পাশ্ববর্তী উপজেলাতেও কয়েক মাস ধরে বিক্রি করে আসছিলেন। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে এই অভিযান পরিচালনা করেন প্রশাসন ও কৃষি বিভাগ।

অতিরিক্ত উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার বলেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন ব্যতীত কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান জৈব সার উৎপাদন, মোড়কজাত করে বাজারজাত করতে পারবে না। কিন্তু ঐ কারখানা মালিক রওশন ট্রাইকো জৈব সার নামে মোড়কজাত করে বিক্রি করছেন এটায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন নেই। যাহা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। তাই প্রশাসন ও কৃষি বিভাগ অভিযান চালিয়েছ।