সৈয়দপুর ০৬:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ দাবি স্থানীয়দের

খানসামায় অনুমতি ছাড়াই প্রধান শিক্ষক কর্তৃক স্কুলের গাছ কর্তন

মো: আজিজার রহমান
  • আপডেট সময় : ১১:৪৭:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩ ২৯ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
দিনাজপুর প্রতিনিধি: সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই দিনাজপুরের খানসামার ৯৩ নং মাদারপীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল হানিফ কর্তৃক ০৭টি গাছ কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।
শনিবার (৩ জুন) দুপুরে ওই স্কুল চত্বরে থাকা ০৭টি ভিভিন্ন জাতের গাছ (আম, কাঁঠাল, শিসর, ইপিল,জাম) গাছ কেটে ফেলা হয়।
স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রধান শিক্ষক কোনো রকম সরকারি নীতিমালা না মেনে অবৈধভাবে স্কুল চত্বরের মূল্যবান গাছ বিক্রি করে দিয়েছেন।
এলাকাবাসীর দাবি, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষে সরজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে এই দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ দাবি জানান।
গাছ ক্রেতা শামসুল হক জানান, হেডমাষ্টার আব্দুল হানিফের কাছ থেকে ৭টি গাছ ৩৩ হাজার টাকায় ক্রয় করে এবং আমার কাছে কোন লিখিত কাগজপত্র না দিয়ে আমাকে গাছগুলো কর্তন করতে বলেন। আমি সেই গাছগুলো হেডমাস্টারের কথা মত গাছ কর্তন করি এবং কিছু গাছ আমার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান মাঠে নিয়ে যাই।
প্রধান শিক্ষক আব্দুল হানিফ বলেন, স্কুলের বাউন্ডারি প্রাচীর দেওয়ার কারণে আমি গাছগুলো কর্তন করা হযেছে,স্কুলের  প্রাচীর না থাকার কারণে অত্র এলাকার ছেলেরা যত্রতত্র স্কুলে প্রবেশ করে এবং স্কুলের সামাজিক পরিবেশ নষ্ট করে। ফলে স্কুলের সামাজিক পরিবেশ ও স্কুলে নিরাপত্তা কথা চিন্তা করে স্কুরে ম্যানেজিং কমিটি সাথে আলোচনা করেই গাছগুলো কর্তন করা হয়েছে। গাছ বিক্রির কথা হলে তিনি জানান, গাছগুলো আমি বিক্রি করি নাই। গাছগুলো স্কুলের মাঠেই সংরক্ষণ করব।
উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি এবং পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ দাবি স্থানীয়দের

খানসামায় অনুমতি ছাড়াই প্রধান শিক্ষক কর্তৃক স্কুলের গাছ কর্তন

আপডেট সময় : ১১:৪৭:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩
দিনাজপুর প্রতিনিধি: সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই দিনাজপুরের খানসামার ৯৩ নং মাদারপীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল হানিফ কর্তৃক ০৭টি গাছ কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।
শনিবার (৩ জুন) দুপুরে ওই স্কুল চত্বরে থাকা ০৭টি ভিভিন্ন জাতের গাছ (আম, কাঁঠাল, শিসর, ইপিল,জাম) গাছ কেটে ফেলা হয়।
স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রধান শিক্ষক কোনো রকম সরকারি নীতিমালা না মেনে অবৈধভাবে স্কুল চত্বরের মূল্যবান গাছ বিক্রি করে দিয়েছেন।
এলাকাবাসীর দাবি, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষে সরজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে এই দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ দাবি জানান।
গাছ ক্রেতা শামসুল হক জানান, হেডমাষ্টার আব্দুল হানিফের কাছ থেকে ৭টি গাছ ৩৩ হাজার টাকায় ক্রয় করে এবং আমার কাছে কোন লিখিত কাগজপত্র না দিয়ে আমাকে গাছগুলো কর্তন করতে বলেন। আমি সেই গাছগুলো হেডমাস্টারের কথা মত গাছ কর্তন করি এবং কিছু গাছ আমার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান মাঠে নিয়ে যাই।
প্রধান শিক্ষক আব্দুল হানিফ বলেন, স্কুলের বাউন্ডারি প্রাচীর দেওয়ার কারণে আমি গাছগুলো কর্তন করা হযেছে,স্কুলের  প্রাচীর না থাকার কারণে অত্র এলাকার ছেলেরা যত্রতত্র স্কুলে প্রবেশ করে এবং স্কুলের সামাজিক পরিবেশ নষ্ট করে। ফলে স্কুলের সামাজিক পরিবেশ ও স্কুলে নিরাপত্তা কথা চিন্তা করে স্কুরে ম্যানেজিং কমিটি সাথে আলোচনা করেই গাছগুলো কর্তন করা হয়েছে। গাছ বিক্রির কথা হলে তিনি জানান, গাছগুলো আমি বিক্রি করি নাই। গাছগুলো স্কুলের মাঠেই সংরক্ষণ করব।
উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি এবং পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।