সৈয়দপুর ১১:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডোমারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

মো: সাহিদুল ইসলাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৩০:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ নভেম্বর ২০২৩ ৩৭ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মোঃ সাহিদুল ইসলাম, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্য সংরক্ষণ, খাদ্যদ্রব্যে নিষিদ্ধ শাল্টুর ব্যবহার, আয়োডিন বিহীন লবণ ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করার অপরাধে নীলফামারীর ডোমারে তিন প্রতিষ্ঠানকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (১লা নভেম্বর) দুপুর ১টায় উপজেলার বোড়াগাড়ী বাজার ও চামারপাড়া মোড়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল ফেরদৌস হ্যাপির নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনায় এমন অসঙ্গতি পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়।

অভিযানে মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্য সংরক্ষণ, হোটেলের খাদ্যদ্রব্যে নিষিদ্ধ শাল্টুর ব্যবহার, আয়োডিন বিহীন লবন ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করার অপরাধে বোড়াগাড়ী বাজারের অলিয়ার হোটেলকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৫২ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। প্রায় একই অপরাধে আর্নিকা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের মালিক আনারুলকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অন্যদিকে, বোড়াগাড়ীর চামারপাড়া মোড়ে কনফেকশনারি দোকানের মালিক ইমরানকে ২ হাজার টাকা জরিমানা সহ মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্যদ্রব্য জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতে প্রসিকিউটিং অফিসার হিসেবে অভিযোগ দায়ের করেন—ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মোঃ আল-আমিন রহমান। এছাড়া আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতা করেন ডোমার থানার এএসআই জগবন্ধু রায় ও সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


ডোমারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

আপডেট সময় : ০৪:৩০:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ নভেম্বর ২০২৩

মোঃ সাহিদুল ইসলাম, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্য সংরক্ষণ, খাদ্যদ্রব্যে নিষিদ্ধ শাল্টুর ব্যবহার, আয়োডিন বিহীন লবণ ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করার অপরাধে নীলফামারীর ডোমারে তিন প্রতিষ্ঠানকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (১লা নভেম্বর) দুপুর ১টায় উপজেলার বোড়াগাড়ী বাজার ও চামারপাড়া মোড়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল ফেরদৌস হ্যাপির নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনায় এমন অসঙ্গতি পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়।

অভিযানে মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্য সংরক্ষণ, হোটেলের খাদ্যদ্রব্যে নিষিদ্ধ শাল্টুর ব্যবহার, আয়োডিন বিহীন লবন ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করার অপরাধে বোড়াগাড়ী বাজারের অলিয়ার হোটেলকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৫২ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। প্রায় একই অপরাধে আর্নিকা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের মালিক আনারুলকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অন্যদিকে, বোড়াগাড়ীর চামারপাড়া মোড়ে কনফেকশনারি দোকানের মালিক ইমরানকে ২ হাজার টাকা জরিমানা সহ মেয়াদোত্তীর্ণ ও খাওয়ার অযোগ্য খাদ্যদ্রব্য জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতে প্রসিকিউটিং অফিসার হিসেবে অভিযোগ দায়ের করেন—ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মোঃ আল-আমিন রহমান। এছাড়া আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতা করেন ডোমার থানার এএসআই জগবন্ধু রায় ও সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স।