সৈয়দপুর ০৭:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বৃষ্টির জন্য দিনাজপুরে ইস্তিসকার নামাজ আদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১১:৩৬:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩ ৩৬ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক:  প্রবল খরার হাত থেকে রক্ষা পেতে বৃষ্টির আশায় দিনাজপুরে ইস্তিসকার নামাজ আদায় ও বিশেষ মোনাজাত করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

সোমবার সকাল ৮টার দিকে দিনাজপুর সদর উপজেলার চেহেলগাজী ঈদগাহ মাঠে নামাজ আদায় করা হয়। বড়ইল মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম নামাজের ইমামতি করেন। কয়েকশত মুসল্লি নামাজে অংশ নেয়।

গাছপালা-ফলমূল, কৃষি ফসল রক্ষা, মানুষ পশুপাখির কষ্টের অবসান চেয়ে নিজেদের পাপাচারের জন্য ক্ষমা চাওয়া-তওবা করে বৃষ্টি বর্ষণের জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা জানান তারা।

এদিকে, দিনাজপুরের উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি ধরনের তাপদাহ। রাতের তাপমাত্রা ২৫ থেকে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে উঠানামা করলেও গত কয়েকদিন ধরে দিনের তাপমাত্রা বিরাজ করছে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, শনিবার রেকর্ড করা হয় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল রবিবার মৌসুমের সবোর্চ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৪১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ৬৫ বছর আগে ১৯৫৮ সালের ৩ জুন দিনাজপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কয়েকদিন এ ধরনের তাপপ্রবাহ থাকবে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


বৃষ্টির জন্য দিনাজপুরে ইস্তিসকার নামাজ আদায়

আপডেট সময় : ১১:৩৬:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:  প্রবল খরার হাত থেকে রক্ষা পেতে বৃষ্টির আশায় দিনাজপুরে ইস্তিসকার নামাজ আদায় ও বিশেষ মোনাজাত করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

সোমবার সকাল ৮টার দিকে দিনাজপুর সদর উপজেলার চেহেলগাজী ঈদগাহ মাঠে নামাজ আদায় করা হয়। বড়ইল মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম নামাজের ইমামতি করেন। কয়েকশত মুসল্লি নামাজে অংশ নেয়।

গাছপালা-ফলমূল, কৃষি ফসল রক্ষা, মানুষ পশুপাখির কষ্টের অবসান চেয়ে নিজেদের পাপাচারের জন্য ক্ষমা চাওয়া-তওবা করে বৃষ্টি বর্ষণের জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা জানান তারা।

এদিকে, দিনাজপুরের উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি ধরনের তাপদাহ। রাতের তাপমাত্রা ২৫ থেকে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে উঠানামা করলেও গত কয়েকদিন ধরে দিনের তাপমাত্রা বিরাজ করছে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, শনিবার রেকর্ড করা হয় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল রবিবার মৌসুমের সবোর্চ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৪১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ৬৫ বছর আগে ১৯৫৮ সালের ৩ জুন দিনাজপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কয়েকদিন এ ধরনের তাপপ্রবাহ থাকবে বলে জানান তিনি।