সৈয়দপুর ০৫:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে যাত্রীবাহী বাস ট্রাক সংঘর্ষে আগুন লেগে অন্তত ১১ জন নিহত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৫:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২ ১৩ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভারতের মহারাষ্ট্রে একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষের পর বাসে আগুন লেগে অন্তত ১১ জন নিহত ও ৩৮ জন আহত হয়েছেন। খবর এনডিটিভি।

কর্তৃপক্ষ জানায়, শনিবার (০৮ অক্টোবর) স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে নাসিক শহরের আওরঙ্গবাদ রোডে মুখোমুখি সংঘর্ষের পর বাসটিতে আগুন ধরে যায়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলকর্মীরা। দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

নাসিকের সহকারী পুলিশ কমিশনার আমল থাম্বে বলেন, বাসটি ছিল স্লিপার কোচ। যারা নিহত হয়েছেন তারা সবাই বাসের যাত্রী ছিলেন। এছাড়া আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের পর তদন্ত কাজ চলছে। বাসে কী কারণে আগুন লেগেছে তা খুঁজে বের করতে চেষ্টা করা হচ্ছে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বিশাল এক অগ্নিকুণ্ড বাসকে আচ্ছন্ন করেছে। দমকলকর্মীরা আগুনের লেলিহান শিখা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে বাসে আগুন লাগলে পুলিশ ও অ্যাম্বুলেন্সকে খবর দেয়া হয়। তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ জানা না গেলেও ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করেছে পুলিশ।

এদিকে, এ দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাদা বসু বলেন, আহতদের চিকিৎসা খরচ বহন করবে সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


ভারতে যাত্রীবাহী বাস ট্রাক সংঘর্ষে আগুন লেগে অন্তত ১১ জন নিহত

আপডেট সময় : ০৫:৩৫:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভারতের মহারাষ্ট্রে একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষের পর বাসে আগুন লেগে অন্তত ১১ জন নিহত ও ৩৮ জন আহত হয়েছেন। খবর এনডিটিভি।

কর্তৃপক্ষ জানায়, শনিবার (০৮ অক্টোবর) স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে নাসিক শহরের আওরঙ্গবাদ রোডে মুখোমুখি সংঘর্ষের পর বাসটিতে আগুন ধরে যায়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলকর্মীরা। দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

নাসিকের সহকারী পুলিশ কমিশনার আমল থাম্বে বলেন, বাসটি ছিল স্লিপার কোচ। যারা নিহত হয়েছেন তারা সবাই বাসের যাত্রী ছিলেন। এছাড়া আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের পর তদন্ত কাজ চলছে। বাসে কী কারণে আগুন লেগেছে তা খুঁজে বের করতে চেষ্টা করা হচ্ছে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বিশাল এক অগ্নিকুণ্ড বাসকে আচ্ছন্ন করেছে। দমকলকর্মীরা আগুনের লেলিহান শিখা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে বাসে আগুন লাগলে পুলিশ ও অ্যাম্বুলেন্সকে খবর দেয়া হয়। তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ জানা না গেলেও ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করেছে পুলিশ।

এদিকে, এ দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাদা বসু বলেন, আহতদের চিকিৎসা খরচ বহন করবে সরকার।