সৈয়দপুর ০৪:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকে লেখালেখির কারনে রাজবাড়ীর রক্তকন্যা স্মৃতি গ্রেফতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১৭:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২ ২২ বার পড়া হয়েছে

সোনিয়া আক্তার স্মৃতি

চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ সরকারের বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে লেখালেখির কারনে রাজবাড়ীতে সোনিয়া আক্তার স্মৃতি নামে এক স্বেচ্ছাসেবী নারীকে মধ্যরাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) দিবাগত মধ্যরাতে রাজবাড়ী পৌরসভার বেড়াডাঙ্গা এলাকার নিজ বাসা থেকে ওই নারী গ্রেফতার হন।

গ্রেফতার হওয়া সোনিয়া আক্তার স্মৃতি রাজবাড়ী পৌরসভার ৩নং বেড়াডাঙ্গা এলাকার প্রবাসী মো. খোকনের স্ত্রী। তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ রাজবাড়ী ব্লাড ডোনার্স ক্লাব’ নামে একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা।

বিভিন্ন সময় সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ঐ নারী তার ফেসবুকে লেখালেখির মাধ্যমে গুজব ছাড়ানোর অভিযোগ এনে রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. সামসুল আরেফিন চৌধুরী বাদী হয়ে সদর থানায় এজাহার দায়ের করেন। সেই এজাহারের প্রেক্ষিতে রাজবাড়ী সদর থানায় দণ্ডবিধি ১৫৩ ও ৫০৫ ধারায় মামলা গ্রহণ করে পুলিশ।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, আসামি উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুনাম ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করিবার লক্ষ্যে উল্লেখিত মিথ্যা, বানোয়াট ও মানহানিকার ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম/ডিজিটাল মাধ্যমে প্রচার করেন।

গ্রেফতারের আগে ফেসবুক লাইভে আসেন সোনিয়া আক্তার স্মৃতি। সেখানে পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমাকে মধ্যরাতে কেন ধরতে আসছেন? আমি তো পালিয়ে যাচ্ছি না। আমার ছোট ছোট দুইটা বাচ্চা আছে। আমি তাদের রেখে আসছি। আমাকে ১০-১৫ মিনিট সময় দেন। আমি স্বেচ্ছায় বের হচ্ছি। তিনি ভাল আছেন, সুস্থ আছেন ফেসবুকে সবার উদ্দেশ্যে জানান তিনি।

মুঠোফোনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাজবাড়ী সদর থানার উপ-পরিদর্শক আলেয়া আক্তার বলেন, সদর থানায় মামলার প্রেক্ষিতে রাতে তাকে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে বাসায় চলে আসছি। এর বেশি এখন কিছু বলা সম্ভব নয়।

প্রতিবেশীরা জানান, সরকারের বিরুদ্ধে লেখালেখির কারণে এর পুর্বেও প্রতিপক্ষের রোষানলে পড়তে হয়েছে তাকে। দুই সন্তানের ওই নারী সকল বাধা পেরিয়ে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাজের মহিমায় রাজবাড়ীতে পরিচিতি পেয়েছেন রক্তকন্যা নামে।

(ভিডিও দেখতে স্পর্শ করুন)

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


ফেসবুকে লেখালেখির কারনে রাজবাড়ীর রক্তকন্যা স্মৃতি গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৫:১৭:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ সরকারের বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে লেখালেখির কারনে রাজবাড়ীতে সোনিয়া আক্তার স্মৃতি নামে এক স্বেচ্ছাসেবী নারীকে মধ্যরাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) দিবাগত মধ্যরাতে রাজবাড়ী পৌরসভার বেড়াডাঙ্গা এলাকার নিজ বাসা থেকে ওই নারী গ্রেফতার হন।

গ্রেফতার হওয়া সোনিয়া আক্তার স্মৃতি রাজবাড়ী পৌরসভার ৩নং বেড়াডাঙ্গা এলাকার প্রবাসী মো. খোকনের স্ত্রী। তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ রাজবাড়ী ব্লাড ডোনার্স ক্লাব’ নামে একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা।

বিভিন্ন সময় সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ঐ নারী তার ফেসবুকে লেখালেখির মাধ্যমে গুজব ছাড়ানোর অভিযোগ এনে রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. সামসুল আরেফিন চৌধুরী বাদী হয়ে সদর থানায় এজাহার দায়ের করেন। সেই এজাহারের প্রেক্ষিতে রাজবাড়ী সদর থানায় দণ্ডবিধি ১৫৩ ও ৫০৫ ধারায় মামলা গ্রহণ করে পুলিশ।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, আসামি উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুনাম ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করিবার লক্ষ্যে উল্লেখিত মিথ্যা, বানোয়াট ও মানহানিকার ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম/ডিজিটাল মাধ্যমে প্রচার করেন।

গ্রেফতারের আগে ফেসবুক লাইভে আসেন সোনিয়া আক্তার স্মৃতি। সেখানে পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমাকে মধ্যরাতে কেন ধরতে আসছেন? আমি তো পালিয়ে যাচ্ছি না। আমার ছোট ছোট দুইটা বাচ্চা আছে। আমি তাদের রেখে আসছি। আমাকে ১০-১৫ মিনিট সময় দেন। আমি স্বেচ্ছায় বের হচ্ছি। তিনি ভাল আছেন, সুস্থ আছেন ফেসবুকে সবার উদ্দেশ্যে জানান তিনি।

মুঠোফোনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাজবাড়ী সদর থানার উপ-পরিদর্শক আলেয়া আক্তার বলেন, সদর থানায় মামলার প্রেক্ষিতে রাতে তাকে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে বাসায় চলে আসছি। এর বেশি এখন কিছু বলা সম্ভব নয়।

প্রতিবেশীরা জানান, সরকারের বিরুদ্ধে লেখালেখির কারণে এর পুর্বেও প্রতিপক্ষের রোষানলে পড়তে হয়েছে তাকে। দুই সন্তানের ওই নারী সকল বাধা পেরিয়ে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাজের মহিমায় রাজবাড়ীতে পরিচিতি পেয়েছেন রক্তকন্যা নামে।

(ভিডিও দেখতে স্পর্শ করুন)