সৈয়দপুর ০১:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সহিংসতার মধ্য দিয়ে ঘোষণা করা হলো ডোমার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল

মো: সাহিদুল ইসলাম
  • আপডেট সময় : ০২:৩৮:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে
চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মোঃ সাহিদুল ইসলাম, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর ডোমার উপজেলা পরিষদের ৬ষ্ঠ সাধারণ নির্বাচন-২০২৪ এর ফলাফল ঘোষণার সময় হামলার ঘটনা ঘটেছে।এ হামলায় ডোমার উপজেলা পরিষদের ভোট গননার কন্ট্রোলরুম ধ্বংসস্তূপে পরিনত হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বুধবার (৮ই মে)রাত সারে ৯টার দিকে সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আনারস প্রতিকের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ এর সমর্থকেরা অতর্কিত এই হামলা চালায়।এ সময় নির্বাচনী ফলাফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত উপজেলা পরিষদ হলরুমের দরজা, চেয়ার, টেবিল ও কম্পিউটার ভাংচুর করেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাবার বুলেট,গুলি বর্ষন ও লাঠি চার্জের মাধমে হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করেছেন এবং ঘটনার পর পাঁচ জনকে আটক করেছেন পুলিশ।

সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করা হয়েছিল ফলাফল ঘোষণা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে প্রায় ঘণ্টাখানেক সংঘর্ষের পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে রাত ১১টার পর ঘোষণা করা হয় ফলাফল।

এতে সরকার ফারহানা আখতার সুমিকে (টেলিফোন প্রতীক) বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ নুর-ই আলম। নির্বাচনে সুমি পেয়েছেন ৩১ হাজার ৪২১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন তোফায়েল আহমেদ (আনারস প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ২৩ হাজার ১৩৪ ভোট।

ফল ঘোষণার পর পরাজিত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ এর কর্মী-সমর্থকরা উপজেলা পরিষদের মূল ফটকের সামনে আবারও হট্টগোল করেন। এসময় পুলিশের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছোড়ে পুলিশ।

হামলার বিষয়ে সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ নুর-ই আলম বলেন, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে অতিদ্রুত আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

নবনির্বাচিত ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরকার ফারহানা আখতার সুমি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে হয়েছে। এই নির্বাচনকে বিতর্কিত করার জন্য এবং নির্বাচনের ফলাফল যেনো দেয়া না হয় সেজন্য নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা হয়েছে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


সহিংসতার মধ্য দিয়ে ঘোষণা করা হলো ডোমার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল

আপডেট সময় : ০২:৩৮:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

মোঃ সাহিদুল ইসলাম, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর ডোমার উপজেলা পরিষদের ৬ষ্ঠ সাধারণ নির্বাচন-২০২৪ এর ফলাফল ঘোষণার সময় হামলার ঘটনা ঘটেছে।এ হামলায় ডোমার উপজেলা পরিষদের ভোট গননার কন্ট্রোলরুম ধ্বংসস্তূপে পরিনত হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বুধবার (৮ই মে)রাত সারে ৯টার দিকে সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আনারস প্রতিকের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ এর সমর্থকেরা অতর্কিত এই হামলা চালায়।এ সময় নির্বাচনী ফলাফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত উপজেলা পরিষদ হলরুমের দরজা, চেয়ার, টেবিল ও কম্পিউটার ভাংচুর করেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাবার বুলেট,গুলি বর্ষন ও লাঠি চার্জের মাধমে হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করেছেন এবং ঘটনার পর পাঁচ জনকে আটক করেছেন পুলিশ।

সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করা হয়েছিল ফলাফল ঘোষণা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে প্রায় ঘণ্টাখানেক সংঘর্ষের পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে রাত ১১টার পর ঘোষণা করা হয় ফলাফল।

এতে সরকার ফারহানা আখতার সুমিকে (টেলিফোন প্রতীক) বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ নুর-ই আলম। নির্বাচনে সুমি পেয়েছেন ৩১ হাজার ৪২১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন তোফায়েল আহমেদ (আনারস প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ২৩ হাজার ১৩৪ ভোট।

ফল ঘোষণার পর পরাজিত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ এর কর্মী-সমর্থকরা উপজেলা পরিষদের মূল ফটকের সামনে আবারও হট্টগোল করেন। এসময় পুলিশের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছোড়ে পুলিশ।

হামলার বিষয়ে সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ নুর-ই আলম বলেন, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে অতিদ্রুত আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

নবনির্বাচিত ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরকার ফারহানা আখতার সুমি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে হয়েছে। এই নির্বাচনকে বিতর্কিত করার জন্য এবং নির্বাচনের ফলাফল যেনো দেয়া না হয় সেজন্য নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা হয়েছে বলে তিনি জানান।