সৈয়দপুর ০৪:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বাধীনতা ইতিহাসের সাথে বীমা কোম্পানির যোগসূত্র রয়েছে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩ ১৭ বার পড়া হয়েছে

জাতীয় বীমা দিবস ২০২৩ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

চোখ২৪.নেট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ডেস্ক রিপোর্টঃ বীমা কোম্পানিতে বসেই ৬ দফা প্রণয়ন করা হয়েছিল। এ দেশের স্বাধীনতার ইতিহাসের সাথে বীমা কোম্পানির যোগসূত্র রয়েছে। বীমা কোম্পানি মানে ইনস্যুরেন্স কোম্পানির সঙ্গে আমাদের পরিবারের সঙ্গে একটা আত্মার সম্পর্ক রয়েছে।

আজ বুধবার (১ মার্চ) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে “জাতীয় বীমা দিবস-২০২৩” উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী অগ্নিঝরা মার্চ নিয়েও তার স্মৃতির কথা তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধ ও উন্নত দেশে পরিণত করার ক্ষেত্রে বীমা খাতকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। বীমা কোম্পানিসমূহকে গ্রাহকের আস্থা অর্জনের লক্ষ্যে সেবার মান উন্নয়নসহ বীমার টাকা দ্রুত পরিশোধের ব্যবস্থা করতে হবে। বঙ্গবন্ধু এ দেশের মানুষকে পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি স্বনির্ভর জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে আজীবন অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন।

তার স্বপ্ন ছিল অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের মাধ্যমে দেশের মানুষের কল্যাণ ও সমৃদ্ধি সুনিশ্চিত করা। সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি উন্নত অর্থনৈতিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সরকার বদ্ধপরিকর। বীমা খাতকে শক্তিশালী করার জন্য আমাদের সরকার বাংলাদেশ বীমা খাত উন্নয়ন প্রকল্পসহ বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। আশা করা যায়, এতে বীমা খাতে আধুনিকায়ন সম্ভব হবে এবং এ খাতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির মাধ্যমে গ্রাহকসেবার মান নিশ্চিত হবে।

উল্লেখ্য যে, প্রথমবারের মতো দেশে পালিত হলো জাতীয় বীমা দিবস-২০২৩।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য


স্বাধীনতা ইতিহাসের সাথে বীমা কোম্পানির যোগসূত্র রয়েছে

আপডেট সময় : ০৮:২২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

ডেস্ক রিপোর্টঃ বীমা কোম্পানিতে বসেই ৬ দফা প্রণয়ন করা হয়েছিল। এ দেশের স্বাধীনতার ইতিহাসের সাথে বীমা কোম্পানির যোগসূত্র রয়েছে। বীমা কোম্পানি মানে ইনস্যুরেন্স কোম্পানির সঙ্গে আমাদের পরিবারের সঙ্গে একটা আত্মার সম্পর্ক রয়েছে।

আজ বুধবার (১ মার্চ) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে “জাতীয় বীমা দিবস-২০২৩” উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী অগ্নিঝরা মার্চ নিয়েও তার স্মৃতির কথা তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধ ও উন্নত দেশে পরিণত করার ক্ষেত্রে বীমা খাতকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। বীমা কোম্পানিসমূহকে গ্রাহকের আস্থা অর্জনের লক্ষ্যে সেবার মান উন্নয়নসহ বীমার টাকা দ্রুত পরিশোধের ব্যবস্থা করতে হবে। বঙ্গবন্ধু এ দেশের মানুষকে পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি স্বনির্ভর জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে আজীবন অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন।

তার স্বপ্ন ছিল অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের মাধ্যমে দেশের মানুষের কল্যাণ ও সমৃদ্ধি সুনিশ্চিত করা। সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি উন্নত অর্থনৈতিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সরকার বদ্ধপরিকর। বীমা খাতকে শক্তিশালী করার জন্য আমাদের সরকার বাংলাদেশ বীমা খাত উন্নয়ন প্রকল্পসহ বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। আশা করা যায়, এতে বীমা খাতে আধুনিকায়ন সম্ভব হবে এবং এ খাতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির মাধ্যমে গ্রাহকসেবার মান নিশ্চিত হবে।

উল্লেখ্য যে, প্রথমবারের মতো দেশে পালিত হলো জাতীয় বীমা দিবস-২০২৩।